তেরে নাম টু : প্রেম ও গ্যাংস্টারের গল্প

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ (বিনোদন ডেস্ক) : ‘২০০৩ সালে মুক্তি পাওয়া ব্লকবাস্টার হিন্দি ছবি ‘তেরে নাম’-এর বহুল প্রতীক্ষিত সিক্যুয়ালের চিত্রনাট্য প্রস্তুত। অভিনেতা-নির্মাতা সতীশ কৌশিক জানালেন, চিত্রনাট্য প্রস্তুত হলেও অভিনেতা ও কলাকুশলীর ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

সে এক দুর্দান্ত সময় ছিল, যখন মাথার মাঝবরাবর সিঁথি আর কপালের দুদিকে নেমে আসা চুলের তরুণরা শহর-গ্রাম দাপিয়ে বেড়াত। মুখে মুখে ফিরত ‘তেরে নাম’ গান। ১৬ বছর আগের সেই দিন ফিরছে! এমন আশা-জাগানিয়া খবর প্রকাশের পরেই সিনেপ্রেমীদের হৃদয়ে চলছে ‘তেরে নাম টু’-কে নিয়ে নানা জল্পনা।

খবরটা যে দিয়েছেন ‘তেরে নাম’ সিনেমার পরিচালক সতীশ কৌশিক নিজেই। বলেছেন, ‘তেরে নাম টু’ একটি প্রেমের গল্প, যা গ্যাংস্টারদের কেন্দ্র করে আবর্তিত হবে।

‘তেরে নাম’ সিনেমার প্রধান চরিত্রে ছিলেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। সালমানের নায়িকা হয়েছিলেন ভূমিকা চাওলা, দক্ষিণী চলচ্চিত্র অঙ্গনে যিনি এখন খ্যাতনামা অভিনেত্রী। ভূমিকা বলিউডে পা রেখেছিলেন এই সিনেমা দিয়েই।

প্রতিপক্ষের আক্রমণের পর যখন সালমান ওরফে রাধে মোহন স্মৃতিভ্রষ্ট হন, তখন ভেঙে পড়েন ভূমিকা ওরফে নির্জরা। প্রেমিকার মৃত্যুর পর ভয়াবহ জীবনের মুখোমুখি হয় নায়ক। তার আগে সালমানের ‘স্টাইলিশ গুণ্ডাগিরি’র প্রেমে পড়েন দর্শক!

রাধে পাড়ার মাস্তান হলেও তাঁর ছিল কোমলমতি হৃদয়। পুরোহিতের মেয়ে নির্জরার প্রেমে পড়েছিলেন। নির্জরার পরিবার এই সম্পর্ক মেনে নেয় না। স্থানীয় গুণ্ডাদের আক্রমণে গুরুতর জখম হয়ে রাধেকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। পরে অভিনেতা রবি কিষাণ ওরফে রামেশ্বরকে বিয়ে করতে বাধ্য হওয়ায় নির্জরা আত্মহত্যা করেন। রাধে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে এসে নির্জরার মৃত্যু দেখে ফের চলে যান মানসিক হাসপাতালে! এই গল্প আর সুন্দর চিত্রায়ণে আবেগমথিত হয় দর্শকের মন। ভেঙে পড়েন তাঁরাও!

দীর্ঘদিন ধরেই ভক্তকুলে অপেক্ষা, কবে প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখা হবে ‘তেরে নাম টু’, কবে তাঁরা নতুন স্টাইলে ফিরে পাবেন ভাইজান সালমানকে। প্রতীক্ষার আংশিক অবসানে মানছে না ভক্তের মন। ‘তেরে নাম টু’-তে সালমান খানকে দেখতেই মুখিয়ে আছেন তাঁরা।

বার্তা সংস্থা পিটিআইকে পরিচালক সতীশ কৌশিক বললেন, চিত্রনাট্য প্রস্তুত হলেও অভিনেতার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়নি। সালমান খানের সঙ্গে এখনো কথা হয়নি তাঁর।

“আমরা চিত্রনাট্য চূড়ান্ত করেছি। যদিও এই সিনেমা সম্পর্কে খুব বেশি প্রকাশ করতে চাই না, তবে বলতে পারি, এটি একটি প্রেমের গল্প, যা গ্যাংস্টারকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হচ্ছে। আমরা এখনো কাস্ট নিয়ে ভাবিনি, সবেমাত্র স্ক্রিপ্ট শেষ করেছি। আমার পরবর্তী প্রযোজনা ‘কাগজ’ শেষ হলেই তবে এই ছবির কাজ শুরু করব,” বলেন সতীশ।

সালমান খানের সঙ্গে কি চিত্রনাট্য নিয়ে আলাপ হয়েছে? এমন প্রশ্নের সরাসরি জবাব এড়িয়ে গেছেন পরিচালক সতীশ কৌশিক।

৫৩ বছর বয়সী তারকা সালমানের অন্যতম সুপারহিট সিনেমা ‘তেরে নাম’। বক্স অফিসে খুব ভালো ব্যবসা করেছিল ছবিটি। আর এই ছবিতে তাঁর পারফরম্যান্স দর্শকহৃদয়ে চিরস্মরণীয়। ছবিতে তাঁর লুক এখনো ভক্তমনে জ্বলজ্বল। সিনেমার গানও ভীষণ জনপ্রিয় হয়। ‘লগন লাগি’, ‘কিঁউ কিসি কো’, ‘ওড়নি’, ‘তুমসে মিলনা’র মতো গান দারুণ জনপ্রিয় হয় সেই সময়। সিনেমার সংগীত পরিচালক ছিলেন হিমেশ রেশমিয়া।

সালমান খান এখন ‘ভারত’ ছবির প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত। এই ছবিতে তাঁর সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন ক্যাটরিনা কাইফ। চলতি বছরের ঈদে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। এ ছাড়া কোরিওগ্রাফার, পরিচালক প্রভু দেবার সঙ্গে ‘দাবাং থ্রি’ ছবির শুটিং করছেন। এতে তাঁর নায়িকা সোনাক্ষি সিনহা। সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘ইনশাআল্লাহ’ সিনেমাতেও কাজ করবেন সালমান, এই ছবিতে তাঁর সহ-অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। সূত্র : ইন্ডিয়া টিভি

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *