একাই দল চালাবেন তারেক, কারো মতামত গ্রাহ্য হবে না- স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত

জনতার চোখ ডেস্ক:

বহুদলীয় গণতন্ত্রের দাবিদার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির নিজের ভেতরেই প্রতিষ্ঠিত হলো একনায়কতন্ত্র! দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কর্তৃক দায়েরকৃত দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অবর্তমানে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তার জ্যেষ্ঠ পুত্র দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী তারেক রহমান।

তারেক রহমানের স্বেচ্ছ্বাচারিতা এবং গোঁয়ার্তুমির কারনে ইতিমধ্যেই দলের যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে- এমন দাবি করে দলের অনেক শীর্ষ নেতাই বিএনপির রাজনীতির প্রতি বীতশ্রদ্ধ হয়ে পড়েছেন। যার ফলাফল- একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ভরাডুবি। অনেকটা প্রকাশ্যে দলের নেতারা তারেকের সমালোচনা করেন। নির্বাচনের আগে তারেক রহমানের তীব্র সমালোচনা করে বরকতউল্লাহ বুলু এবং মওদুদ আহমেদের ফোনালাপ ফাঁসের আগে থেকেও যা চলমান আছে।

এবার তাই বাধ্য হয়ে দল পরিচালনায় একক সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে তারেক রহমানের হাতে দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। গতকাল রবিবার দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সন্ধ্যা ৭টা থেকে আড়াই ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠকে স্কাইপির মাধ্যমে লন্ডন থেকে সংযুক্ত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

 

বৈঠক শেষে স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য বলেন, স্থায়ী কমিটির এই বৈঠকে তারেক রহমানকে দলের যেকোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে দলের সাংগঠনিকসহ জরুরি সিদ্ধান্তগুলো তিনি নেবেন। গঠনতন্ত্রে চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতিতে সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান দলের মধ্যে একই ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারেন। তারেক রহমান যদিও একক কোনো সিদ্ধান্ত নেন না তারপরও বিএনপিকে নিয়ে যে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে তা প্রতিহত করতে এবং তার হাতকে শক্তিশালী করতে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখানে কারো কোনো মতামত বা আপত্তি গ্রহণযোগ্য হবে না। স্থায়ী কমিটির সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে স্থায়ী কমিটির এই বৈঠকে।

জানা গেছে, খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর স্থায়ী কমিটির নেতাদের সমন্বয়ে যৌথ নেতৃত্বে দল পরিচালিত হয়েছে। সেই অবস্থায় এখন তারেক একক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন- দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

Please follow and like us:

2 thoughts on “একাই দল চালাবেন তারেক, কারো মতামত গ্রাহ্য হবে না- স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *